Home » রাজশাহী » বগুড়া শাজাহানপুরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে খুন হওয়া বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

বগুড়া শাজাহানপুরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে খুন হওয়া বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

শাজাহানপুরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে খুন হওয়া বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

মাসুম হোসেন, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আজ সকালে বগুড়া শাজাহানপুর জামুন্না গ্রামে এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। নিহত বৃদ্ধ কৃষক মকবুল হোসেন(৬৫) জামুন্না সোনাইদিঘি গ্রামের মৃত- আলহাজ¦ কমরউদ্দিনের পুত্র। নিহত মকবুল হোসেনের পারিবারিক কবরস্থানের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
জানাযায়, নিহত মকবুল হোসেনের ৮ বছর আগে ২য় বিয়ে হয় শিউলি আক্তারের(৩০) সাথে। উপজেলার জামুন্না সোনাইদিঘি দক্ষিণ পাড়ায় তার এক বাড়িতে শিউলি আক্তারের সঙ্গে তিনি থাকতেন। শিউলি আক্তারের কোন সন্তান নেই। এর আগেও তার ২বার বিয়ে হয়েছিল। শিউলি আক্তারকে বিয়ে করার পর থেকে তিনি প্রথম স্ত্রীর বাড়িতে আসা-যাওয়া কমে দিয়েছিলেন। তার প্রথম স্ত্রী আনোয়ারা বেগম সোনাইদিঘি মধ্যেপাড়ায় থাকতেন। আনোয়ারা বেগমের ২ ছেলে ও ২ মেয়ে রয়েছে। আজ রবিবার সকাল ৭টায় সোনাইদিঘি বড়পুকুর পাড়ায় নিহত মকবুল হোসেনের পারিবারিক কবরস্থানের পাশে তার লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরবর্তিতে পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।
নিহতের প্রথম স্ত্রী আনোয়ারা বেগম জানান, তার স্বামী মকবুল হোসেন দীর্ঘদিন যাবৎ তার বাড়িতে আসে না। ছোট বউ শিউলি আক্তারের বাড়িতেই থাকে। মাঝে মাঝে আসলেও খুব কম সময় থাকে। শনিবার রাতে তার বাড়িতে আসার কথা ছিল না। মকবুল হোসেনের কোন শক্রু নেই। তবে গত বৃহস্পতিবারে শিউলি আক্তার তার স্বামীর সাথে বাড়িতে এসে মকবুলকে কেও হত্যা করতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করেছিল। শেরপুরের বাদশা নামে এক লোক বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার কথা বলে প্রতারণা করে তার স্বামীর কিছু সম্পত্তি লিখে নিয়েছিল ও ৪ লক্ষ টাকাও নিয়েছিল। পরবর্তিতে সম্পত্তি ফেরত দেয় কিন্তু ৪ লক্ষ টাকা ফেরত দেয়নি। বাদশা নিয়মিত শিউলি আক্তারের বাড়িতে আসা-যাওয়া করতো।
নিহত মকবুল হোসেনের ২য় স্ত্রী শিউলি আক্তার জানান, শনিবার রাতে এশার নামাযের পর বড় বউ আনোয়ারা বেগমের বাড়ির উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায় তার স্বামী। এই হত্যাকান্ড সম্পর্কে তিনি কিছু বলতে পারেন না। মকবুল হোসেনের কোন শক্রু নেই। তার স্বামী রাতে বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় গেটে তালা দিয়ে চাবি নিয়ে গিয়েছিল। পরবর্তিতে সকালে খবর পাওয়ার পর তার শার্টের পকেট থেকে একজন চাবি নিয়ে এসে গেট খুলে দেয়। বাদশা মাঝে মাঝে তার বাড়িতে আসতো।
অপরদিকে বাদশার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
শাজাহানপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক(সার্বিক) জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মকবুল হোসেন নিহত হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*