সর্বশেষ সংবাদ
Home » লাইফ স্টাইল » ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখবেন যেভাবে

ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখবেন যেভাবে

ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখবেন যেভাবে

সময় গড়ালে বার্ধক্যের ছাপ পড়বেই। তবে এই প্রক্রিয়াকে তাড়িত করে আমাদের ব্যস্ত-জীবন ব্যবস্থা, উল্টাপাল্টা খাওয়া-দাওয়া আর রুক্ষ আবহাওয়া। তাই দ্রুত বুড়িয়ে যাওয়া ঠেকাতে চোখের যত্ন নেওয়ার পাশাপাশি ত্বক রাখতে হবে আর্দ্র।
সময় গেলে সাধন হবে না- হ্যা! ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে গেলেও সময়ের কথা মাথায় রাখতে হবে। আর আগেভাগেই বলিরেখা না পড়ার ব্যবস্থা নিলে দামী প্রসাধনী ব্যবহার করারও দরকার পড়বে না।

ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে পরামর্শ দিয়েছেন ভারতের ‘দি হিমালায়া ড্রাগ কোম্পানি’র প্রধান গবেষক চন্দ্রিকা মাহিন্দ্রা।
ত্বক আর্দ্র রাখা: ‘এসপিএফ’ এবং এইডেলভাইজ (Edelweiss) উদ্ভিদের নির্যাস আছে এরকম ‘হার্বাল ডে ক্রিম’ ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। এই উদ্ভিদের নির্যাসে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, বার্ধক্য-রোধ এবং ত্বক ভালো রাখার উপাদান। আর ক্রিমটা হবে ভেজা ভেজা, থাকতে হবে দ্রুত শোষিত হওয়া এবং ত্বক পুষ্ট করার ক্ষমতা।

স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস: ভারসাম্যহীন খাওয়া-দাওয়া শুধু স্বাস্থ্যই খারাপ করে না, ত্বকেও বাজে প্রভাব ফেলে। তাই উচ্চ মাত্রায় ভিটামিন আছে এরকম খাবার খেতে হবে। যেমন- ফল, সালাদ, কৃত্রিম নয় প্রাকৃতিক ভাবে প্রস্তুত জুস এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার, যা ত্বককে স্বাভাবিকভাবে আর্দ্র রেখে করে তুলবে উজ্জ্বল।

ত্বক রক্ষায় ‘নাইট ক্রিম’: রাতে ত্বকের কোষকলা দ্বিগুণ হারে বাড়ে। এই প্রক্রিয়া আরও দ্রুত করতে ব্যবহার করুন উদ্ভিজ্জ উপাদান দিয়ে তৈরি হারবাল প্রসাধনী। এই ধরনের ‘নাইট ক্রিম’ ঠিক ঘুমানোর আগে ব্যবহার করুন। যা সারারাত ত্বকের ক্ষয়পূরণ করবে। আর রাতে অবশ্যই পর্যাপ্ত ঘুম দিতে হবে।

চোখ রক্ষা করুন: চোখের আশপাশের ত্বক সবচেয়ে কোমল থাকে। আর বার্ধক্যের ছাপ সবার আগে এখানেই পড়ে। তাই চোখের চারপাশে উন্নত মানের উদ্ভিজ্জ উপাদানে তৈরি ‘আন্ডার আই ক্রিম’ ব্যবহার করুন। চোখের চারপাশের ত্বক আর্দ্র রাখার পাশাপাশি এটা আপনাকে উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত দেখাতে সাহায্য করবে।

সময় নিন: বর্তমানের কর্মব্যস্ত দ্রুত জীবন পদ্ধতি আমাদের বেশিরভাগ সময় মানসিক চাপের মধ্যে রাখে। আর যেকোনো মানসিক চাপ ত্বকের ক্ষতি করেই। পাশাপাশি দেখায় মলিন। চেহারায় ফেলে বার্ধক্যের বলিরেখা।

এই ধরনের অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে মেডিটেশন খুবই উপকারী। করতে পারেন ইয়োগা। এগুলো হরমনের ভারসাম্য রক্ষা করে মানসিক চাপ দূর করতে সাহায্য করে। তাই ত্বকে নবযৌবন আনতে ব্যস্ত জীবন থেকে একটু ছুটি নিয়ে মানসিক প্রশান্তি পাওয়ার চেষ্টা করুন।

মন্তব্য

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা

এই করোনাভাইরাসটি ভয়াবহ গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। এটি প্রতিরোধ করার জন্য প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করা অত্যন্ত জরুরি। শিশুদের উপর এই ভাইরাসের প্রভাব বা এতে কতজন আক্রান্ত হতে পারে- সে সম্পর্কে আমরা এখনও বেশি কিছু জানি না। কিন্তু নিবিড় পর্যবেক্ষণ ও প্রতিরোধ এক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে হয়। সময় আমাদের সাথে নেই।”