Logo
সংবাদ শিরোনাম :
ফাপোর আন্তঃ ইউনিয়ন ফুটবল টুর্নামেন্টে অনুষ্টিত। টুঙ্গিপাড়া গ্রাম থেকে বিশ্বমানবতার নেত্রী ছাত্রদলে মিছিলে ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদে বগুড়া জেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নওগাঁয় ভুট্টাক্ষেত থেকে শিশুর হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার গাজীপুরে গোডাউনে মিলল টিসিবি পণ্য চীনে ১৩৩ যাত্রী নিয়ে বিমান বিধ্বস্ত বগুড়ায় পিকনিকে হামলা করে যুবককে কুপিয়ে হত্যা একশত টাকা মূল্যমানের প্রাইজ বন্ডের ১০৬তম ‘ড্র’ অনুষ্ঠিত !! বগুড়া শহরে প্রথম চার তারকা হোটেল নাজ গার্ডেন বিক্রি বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের নেত্রী মাহবুবা নাসরিন রুপাকে জেলা আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার




জলমহল সংস্কার প্রকল্পে কোটি টাকার মাটি বিক্রি

প্রতিবেদকের নাম :
আপডেট করা হয়েছে : বুধবার, ২৫ এপ্রিল, ২০১৮

মাসুম হোসেন, স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়া শাজাহানপুরে জলমহল সংস্কার প্রকল্পে কোটি টাকার মাটি বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার মালিপাড়া এলাকার সাতবিল নামক বিল সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধিতে ১৪লক্ষ টাকা বরাদ্ধে পাড় বাধা প্রকল্পে এই অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এতে রাষ্ট্র কোটি টাকা রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হলেও নীরব ছিল সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ। অপরদিকে গভীর গর্ত করে মাটি উত্তোলন করায় ওই বিলের আশেপাশের কৃষি জমিও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।
জানা গেছে, সাতবিল নামক বিল সংস্কার প্রকল্প নিতে মাদলা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল বারী মন্ডল পানি সেচের মাধ্যমে বিল শুকিয়ে ফেলে। বিলের পানি ব্যবহার করে স্থানীয় কৃষকরা তাদের জমিতে চাষাবাদ করতো। সেচ কার্য বন্ধে কৃষকরা জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দিলেও কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি । বিল শুকিয়ে ফেলে জলমহল সংস্কার প্রকল্প দেখিয়ে অবৈধ ভাবে মাটি উত্তোলন ও বিক্রি করা হয়েছে। প্রকাশ্যে বিলের মাটি ভাটায় বিক্রি হলেও ব্যবস্থা নেইনি সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ। এতে প্রায় এক কোটি টাকা রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হয়েছে রাষ্ট্র।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় কৃষকরা অভিযোগ করে বলেন, ওই প্রকল্পের সভাপতি বিলের পাড় বাধা প্রকল্পের সুযোগে প্রায় এক কোটি টাকার মাটি বিক্রি করেছে। অবৈধ ভাবে মাটি উত্তোলনের কারণে তাদের আবাদী জমি গুলোও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। বিলের মাটি উত্তোলন করে ইটভাটায় বিক্রি করা হয়েছে। প্রকল্পের সভাপতি আব্দুল বারী মন্ডল প্রভাবশালী হওয়ায় কেও অভিযোগ করার সাহস পায়নি।
মাদলা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ সভাপতি ও প্রকল্পের সভাপতি ্আব্দুল বারী মন্ডল জানান, আমার প্রকল্প থেকে মাটি বিক্রি করা হয়নি। প্রকল্পের বাইরে থেকে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মিরা এসে মাটি কেটেছে।
উপজেলা মৎস কর্মকর্তা আরিফ আহমেদ জানান, মাটি যখন বিক্রি করেই ফেলেছে এখন আর কিছুই করার নেই। আগে জানলে ব্যবস্থা নেওয়া যেত।

মন্তব্য

মন্তব্য





এই ধরনের আরও খবর

ফেসবুকে আমরা




Theme Created By ThemesDealer.Com