সর্বশেষ সংবাদ
Home » বিনোদন » ভালো বাজেট পেলে অন্যরাও শাকিবের মতো ভালো করতে পারত

ভালো বাজেট পেলে অন্যরাও শাকিবের মতো ভালো করতে পারত

চিত্রনায়িকা কেয়া। ২০০১ সালে মাত্র ১৪ বছর বয়সে ‘কঠিন বাস্তব’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে চলচ্চিত্রাঙ্গনে অভিষেক ঘটে তার। ২০০৩ সালে তিনি ‘সাহসী মানুষ চাই’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন, যা দুইটি বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করে। ২০১৫ সালে তার অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র ব্ল্যাকমানি মুক্তি পায়। এরপর চার বছরের বিরতি।বিরতির পর ‘ইয়েস ম্যাডাম চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আবারও শুটিংয়ে ফিরেছেন তিনি। এই ছবির শুটিংয়েই কথা হয় কেয়ার সঙ্গে

২০১৫ সালে আপনার সর্বশেষ ছবি ‘ব্ল্যাকমানি’ মুক্তি পায়। এর পর আর সিনেমা্য় দেখা যায়নি কেনো?

আসলে এতো দিনের গ্যাপের কারণটা বলতে তেমন ইচ্ছে করেনা। তবে সবাই এই বিরতির কারণটাই জানতে চাচ্ছেন। মূলত পরিবারিক কারণেই এই বিরতি। আমার মা অসুস্থ ছিলেন। তাকে সময় দিতে হয়েছে। এছাড়া ছবিতে যে অভিনয় করবো তেমন ভালো ছবির প্রস্তাবও পাইনি। যেগুলোর প্রস্তাব পেয়েছি সেগুলোতে অভিনয় করার মতো ছিলো না বলেই করা হয়নি।

‘ইয়েস ম্যাডাম’ দিয়ে সিনেমায় ফিরছেন। এটা আপনার প্রত্যাশা পূরণ করার মতো গল্পের ছবি?

রকিবুল ইসলাম রকিব ভাই পরিচালনা করছেন ছবিটি।  এতে যে চরিত্রটিতে আমি অভিনয় করছি সেটা আমার ভালো লাগার চরিত্র। তাই অভিনয় করা। ছবিটির গল্পও চমৎকার।

এখন তো সিনেমার বাজার খুব একটা ভালো না। এই সময়ে ফিরে কী ভালো কিছু হবে?

সিনেমার বাজার নেই এটা কিন্তু আমাদের দোষেই। কারণ আমরা দর্শকদের জন্য ভালো হল তৈরি করতে পারিনি। দর্শকরা যেমন হল চায় আমরা তেমন হল দিতে পারছিনা। আমরা যখন সিনেমায় শুটিং শুরু করি তখন অনেক হল ছিলো। এখন তার অর্ধেকও নেই। হল কমে একেবারে নাই হয়ে যাওয়ার মতো অবস্থা। আমরা ভালো হল দেই, ভালো সিনেমা দেই দেখবেন সিনেমার বাজার ঠিকই ভালো হয়ে যাবে।

শিপনের সঙ্গে কাজ করছেন। সে তো আপনার অনেক জুনিয়র। তার সঙ্গে কাজ করতে কেমন লাগছে?

শিপনের আগের কাজ  দেখেছি। তার সঙ্গে অনেক আগেই একটা গানে কাজ করার কথা ছিলো। কিন্তু করা হয়নি। এখন সিনেমা করছি। তার সঙ্গে কাজ করে ভালোই লাগছে।

শাকিব খানের সঙ্গেও বেশ কিছু ছবিতে কাজ করেছেন আপনি। শাকিব খান এখন ইন্ডাষ্ট্রির শীর্ষ নায়ক। তার সঙ্গে কী আবার কাজ করতে চান?

অনেক ছবিই শাকিব খানের সঙ্গে করেছি। একটা সময় আমি আর শাকিব সেরা জুটি হয়েছিলাম। দেশের একটি কণমাধ্যমের জরিপে এটা উঠে এসেছিল। সুযোগ পেলে আবারও শাকিবের সঙ্গে কাজ করবো। এখানে একটা বিষয় বলতে চাই। সেটা হচ্ছে,র শাকিব খানের ছবিগুলোর বাজেট বেশি থাকে। আয়োজনও বেশি থাকে। তবে তার ছবির মতো অন্য নায়ক-নায়িকাদের ছবির বাজেট ও আয়োজন বেশি থাকলে তারাও ভালো করতে পারবে।

তার মানে বলছেন শাকিব খানের ছবির মতো বড় বাজেটের ছবি পেলে অন্য নায়করাও ভালো করতে পারতো?

অবশ্যই। শাকিব খানের ছবিতে যেমন বাজেট থাকে অন্যদের ছবির বেলায় কিন্তু সে বাজেট থাকেনা। এখন যারা কাজ করছেন এবং নতুন নায়ক নায়িকা যারা আসছেন তারা যদি শাকিব খানের মতো বড় বাজেটের ছবি পেতেন তাহলে তারাও ভালো কিছু করতে পারতেন। আমি করি তাদের জন্যও জায়গা করা দেয়া উচিত।

সম্প্রতি শাকিব খানের বীর ছবির ফার্স্ট লুক প্রকাশিত হয়েছে। সেটা নিয়ে নানান কথা হচ্ছে। এটা নিয়ে আপনার মন্তব্য কী?

শাকিব মানেই তো ব্যতিক্রম কিছু থাকে। ‘বীর’ ছবির প্রথম লুকেও ব্যতিক্রম কিছু আছে। কে বলছে জানিনা তবে আমার

copy

মন্তব্য

মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.